,

কুষ্টিয়ায় ভেঙে দেওয়ার ২৪ ঘন্টা পর আবার ইটের ভাটায় অবৈধ টিনের টিমনি ব্যবহার !!

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাংলা সময় টোয়েন্টিফোর ডটকম;
মাহাতাব উদ্দিন লালন:-কুষ্টিয়া কুমারখালী উপজেলাধীন মহুয়া ও এ কে বি নামক দুইটি ইটের ভাটায় অবৈধ ভাবে টিনের চিমনি ব্যবহার করায় গত শনিবার সকালে ভ্রাম্যমাণ অভিযান চালিয়ে তা ভেঙে দেয় উপজেলা প্রশাসন।কিন্তু ভেঙে দেওয়ার ২৪ ঘন্টা পার না হতেই আবার অবৈধ টিনের চিমনি ব্যবহার করে ইট প্রস্তুত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

রবিবার সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে উপজেলার যদুবয়রা ইউনিয়নের লালন বাজার সংলগ্ন লালন বাজার টু পান্টি সড়কস্থ মহুয়া ও এ কে বি নামক ইটের ভাটায় সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়,অবৈধ টিনের চিমনি ব্যবহার করা হচ্ছে,ব্যবহৃত হচ্ছে কাঠ।

কৃষি জমি ব্যবহার করে প্রধান সড়কের পাশে ও পাশাপাশি দুইটি ইটের ভাটা নির্মিত হওয়াই সড়কে সৃষ্টি হয় প্রচুর ধুলা,একটু বৃষ্টি হলেই সড়কে সৃষ্টি হয় কাঁদা।ফলে প্রতিবছর ঐ স্থানে সড়ক দুর্ঘটনা ঘটার কথাও বললেন নাম প্রকাশ না করা শর্তে একজন পথচারী।

এ বিষয়ে কুমারখালী উপজেলা সহকারি কমিশার (ভূমি) নূর -এ -আলম বলেন, প্রয়োজনীয় কাগজপত্র না থাকায়, টিনের চিমনি ও কাঠ ব্যবহার ও পরিবেশ বান্ধব না হওয়ায় শনিবার ভ্রাম্যমাণ অভিযানে যদুবয়রা ইউনিয়নের মহুয়া ও এ কে বি ব্রিকস দ্বয়ের ২০ হাজার করে সর্বোমোট ৪০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয় ও দুইটি ভাটার অবৈধ টিনের চিমনি ভেঙে দেওয়া হয়।

তারা যদি আবারও টিনের চিমনি ব্যবহার করে তাহলে আবারও ভেঙে দেওয়া হবে। এ বিষয়ে কথা বলতে রাজি হননি মহুয়া ব্রিকসের প্রোঃ আনোয়ার হোসেন ও এ কে বি ব্রিকসের প্রোঃ বাবু।

এ জাতীয় আরো সংবাদ


ফেসবুকে আমরা