,

কুষ্টিয়ায় শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী মদন’সহ বুন্দুকযুদ্ধে ২ জন নিহত ! ১৭শত পিস ইয়াবা , অস্ত্রও গুলি উদ্ধার !

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাংলা সময় ২৪ ডটকম : জাহাঙ্গীর আলম খাঁন,স্টাফ রিপোর্টার:-কুষ্টিয়ার সদর উপজেলার কবুরহাট এবং দৌলতপুর উপজেলার বাঁধের বাজার এলাকায় পুলিশের সাথে পৃথক দুটি বন্দুকযুদ্ধে ২ জন নিহত হয়েছে। এই দুটি ঘটনায় প্রায় ১৭শত পিস ইয়াবা , অস্ত্রও গুলি উদ্ধার করে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার দিবাগত মধ্যরাতের পৃথক বন্দুকযুদ্ধের ঘটনায় পুলিশের ২ উপ-পরিদর্শকসহ ৭সদস্য আহত হয়েছে এবং নিহত দুইজনই মাদক ব্যবসায়ী বলে দাবি করেছে পুলিশ।

কুষ্টিয়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ নাসির উদ্দিন বাংলা সময় ২৪ ডটকম’কে জানান, রাত অনুমান ৩টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর আসে সদর উপজেলার কুবরহাট এলাকায় দু দল মাদক ব্যবসায়ীর মধ্যে গোলাগুলি চলছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে মডেল থানার একদল ফোর্স ঘটনাস্থলে পৌছায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক ব্যবসায়ী পাল্টা পুলিশের উপর গুলি বর্ষণ করে। এতে পুলিশও জবাব দিলে ত্রীমুখি বেশ কিছুক্ষণ বন্দুকযুদ্ধ চলে। বন্দুকযুদ্ধ থেমে গেলে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ আহত অবস্থায় এক যুবককে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে। তবে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত পুলিশ তার নাম পরিচয় কিছুই জানাতে পারেনি।

মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ নাসির উদ্দিন বাংলা সময় ২৪ ডটকম’কে আরো জানান, এ ঘটনায় চারজন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে। নিহত যুবক মাদক ব্যবসায়ী বলে পুলিশ দাবী করেছে। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ ১টি বিদেশী পিস্তল, ২টি পিস্তলের ম্যাগজিন, ৩ রাউন্ড গুলি ও ৮শ পিচ ইয়াবাস উদ্ধার করেছে।

অপরদিকে দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহ দারা খান বাংলা সময় ২৪ ডটকম’কে জানান, রাত সাড়ে ৩টার দিকে দৌলতপুর উপজেলার বাধের বাজার এলাকায় একদল মাদক ব্যাবসায়ী মাদকের কেনা বেচা করছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশে একটি দল সেখানে পৌছলে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা পুলিশকে লক্ষ করে গুলি ছোড়ে, পরে পুলিশও পাল্টা গুলি ছুড়লে পালিয়ে যায় তারা। এঘটনায় পুলিশে ৩ সদস্য আহত হ

দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহ দারা খান বাংলা সময় ২৪ ডটকম’কে আরো জানান, পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় অজ্ঞাত এক ব্যাক্তির মরদেহ উদ্ধারকরে।নিহতের নাম মদন (৪৫)। সে সীমান্ত সংলগ্ন জামাল গ্রামের রিফাজ উদ্দিনে ছেলে এবং সে দৌলতপুরের শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী। তার বিরুদ্ধে দেড় ডজনেরও বেশী মামলা রয়েছে। পুলিশ এসময় ১ টি বিদেশীপিস্তল ৩ রাউন্ড গুলিসহ ৯শ পিস ইয়াবা উদ্ধার করে।

এ জাতীয় আরো সংবাদ


ফেসবুকে আমরা