,

অপহরণ নয়’ বরং প্রেমের সম্পর্কের কারণেই প্রেমিকের হাত ধরে বাড়ী ছেড়েছে জুঁই।

সারা বাংলা সময় ডেস্ক,বাংলা সময় টুয়েন্টিফোর ডটকম, স্টাফ রিপোর্টার -ওমর ফারুক : কুষ্টিয়া ভেড়ামারায় অপহরনের মিথ্যা নাটক সাজিঁয়ে ছেলের পরিবারের থেকে অর্থ আদায়ের অপচেষ্টা। কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা সরকারী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের
নবম শ্রেণীর ছাএী ফাতেমা আক্তার জুঁই (১৬)
সে চাঁদগ্রাম ইউনিয়নের রাসেলের আলীর মেয়ে।

জুঁইয়ের বাবা রাসেল আলী মিথ্যা অভিযোগ তুলেছেন জুঁইকে নাকি অপহরণ করা হয়েছে। এব্যাপারে থানায় একটি জিডিও করেন। বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তোলপাড় শুরু হয়।

♦♦ কিন্তু অনুসন্ধান বলছে ভিন্নকথা……….

রাসেল আলীর স্কুলপড়ুয়া মেয়ে ফাতেমা আক্তার জুঁইয়ের সাথে একই এলাকার রাইজউদ্দীনের কলেজ পড়ুয়া ছেলের গভীর প্রেমের সম্পর্ক্য চলে আসছিলো। গত ২৮ ই জানুয়ারী ১১ টার দিকে স্কুলে যাওয়ার নাম করে প্রেমিক রুহানের হাত ধরে পালিয়েছে একাধিক সূএে জানাযায়।

তবে জুঁইয়ের লোভী পরিবার বিষয়টি ভিন্নখাতে
প্রভাবিত করতে অপহরনের মিথ্যা নাটক সাজাঁয়।
এবং ভেড়ামারা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেন। বিষয়টি দ্রুত আমলে নিয়ে ভেড়ামারা থানা পুলিশ রুহানের বাবাকে জিঙ্গাসাবাদের জন্য হাজির করে জিঙ্গাসাবাদ শেষে রাইজউদ্দীন কে ছেড়ে দেয়।

উল্লেখ্য, নবম শ্রেণীর ছাএী
ফাতেমা আক্তার জুঁই (১৬) কে ৫ম শ্রেণীতে
থাকাকালীন সময় তার অর্থলোভী বাবা রাসেল
আলী ও তার পরিবার টাকার মোহে পড়ে
ইচ্ছার বিরুদ্ধে নাবালিকা ১২ বছরের মেয়ে’কে প্রবাসী ছেলের সাথে বিয়ে দেয়। কিন্তু তা স্থায়ীত্ব পাইনি।

কিছুদিন পর মোটা অংকের টাকা পয়সার দফা’রফার পর রাসেল আলী মেয়ে’কে ছাড়িয়ে নেন। প্রবাসী ছেলেটির বাাড়ী দৌলতপুরের আল্লার দর্গায়। কিছুদিন পূর্বে ছেলেটিও বিয়ে করে ফেলেছে বলে অনুসন্ধানে জানাযায়।

একাধিক সূএে জানাযায়, মেয়ের বাবা রাসেল আলী মোটা অংকের অর্থ আদায়ের জন্যই, প্রেমের বিষয়টি অন্য দিকে মোড় ঘুরিয়ে অপহরণের মিথ্যা নাটক সাজিয়ে ছেলের পরিবারের উপর চাপ প্রয়োগ করছে এবং হয়রানি করছেন।

।। যা অযৌক্তিক ।।

বাংলা সময় টুয়েন্টিফোর ডটকম

এ জাতীয় আরো সংবাদ


ফেসবুকে আমরা

ফেসবুকে আমরা