,

আহত সজিব মৃত্যুর পথযাত্রী তবুও মামলা নেয়নি ময়মনসিংহ কোতোয়ালী থানা পুলিশ

আহত সজিব মৃত্যুর পথযাত্রী তবুও মামলা নেয়নি
ময়মনসিংহ কোতোয়ালী থানা পুলিশ

সারা বাংলা ডেস্ক,বাংলা সময় টুয়েন্টিফোর ডটকম, স্টাফ রিপোটার, ময়মনসিংহ থেকে বদরুল আমিন : কতটা নির্যাতিত হওয়ার পর বা কত টাকা দিলে ময়মনসিংহ কোতোয়ালী মডেল থানার পুলিশ মামলা নেয়? এমন প্রশ্ন জেগেছে চর ঈশ্বরদিয়া ইউনিয়নবাসী সাধারন মানুষের মনে। গত ১২ জানুয়ারী/২০১৯ সকাল ৬ টায় একই এলাকার কতিপয় সন্ত্রাসী চর নিলয়ি খানপাড়ার সজীবকে(১৭) অমানুষিক নির্যাতন করার পর তার শরিলে বিভিন্নস্থানে জখমসহ পেটের নাড় উল্টে পাল্টে যায়। সেই থেকে অদ্যবদি ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি আছে।

ডাক্তার বলেছেন সজিবের অবস্থা আশংকাজনক। এ ঘটনায় বিচার প্রর্থী হতভাগ্য পিতার দেয়া অভিযোগ আড়াই মাসেও পুলিশ আমলে নেয়নি!

অভিযোগকারীর বাদী বাচ্চু মিয়া জানান, তিনি থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। পুলিশ ঘটনা স্থলে গিয়ে তদন্ত করার পর পথ খরচ ২৮শ টাকাও দিয়েছেন। এস আই মোস্তাফিজ ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গিয়ে আহত রোগীর জবানবন্দি নিয়েছেন কিন্ত আজও তা মামলা হয়নি। পুলিশ যাকে নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়েছিলেন তিনি মামলা করতে ১০ হাজার টাকা খরচ চেয়েছেন। টাকা নাদিয়ে মামলা করতে তদবির করায় এখন আসামীরা বাচ্চুর বিরোদ্ধে থানায় অভিযোগ করেছে। পুলিশ এখন বাচ্চুকে হুমকিধমকি দেয়।
অভিযোগের বিবরনে প্রকাশ, গত ১২ জানুয়ারী সকাল ৬ টায় সজিব দোকানে যাওয়ার পথে চর নিলয়িা খানপাড়া স্কুল মাঠে যাওয়ার মাত্রই একই এলাকার এনামূল, সুমন,কাইয়ুমসহ ৩/৪ জন মিলে সজিবকে অমানুষিক নির্যাতন করে। সজিবকে মাটিতে ফেলে লাথি আর গুরিয়ে বুকপেটসহ শরিলের বিভিন্ন স্থানে মারাতœক জখম করে।

এতে সে মারাত্বক আহত হয়। দীর্ঘ আড়াই মাস ধরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে। ডাক্তার জানিয়েছে সবিবের অবস্থা আশংকা জনক। তার পরও হতভাগ্য পিতা বাচ্চুর অভিযোগটি আমলে নেয়নি ময়মনসিংহ কোতোয়ালী মডেল থানার পুলিশ!

বাংলা সময় টুয়েন্টিফোর ডটকম

এ জাতীয় আরো সংবাদ


ফেসবুকে আমরা

ফেসবুকে আমরা