,

ময়মনসিংহ সিটি করর্পোরেশন নির্বাচনে ১ নং সুলতানের জনপ্রিয়তা ব্যাপক

ময়মনসিংহ সিটি করর্পোরেশন নির্বাচনে ১ নং সুলতানের জনপ্রিয়তা ব্যাপক

সারা বাংলা ডেস্ক,বাংলা সময় টুয়েন্টিফোর ডটকম, স্টাফ রিপোটার, ময়মনসিংহ থেকে বদরুল আমিন : আসন্ন ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন ৫ মে। সে হিসাবে ১ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থীরা ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন তাদের কাঙ্খিত ভোটের আশায়। ওয়ার্ডে আলোচিত ও সমালোচিত অনেক প্রার্থী দাড়িয়েছে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর হওয়ার জন্য। এখন সব প্রার্থীরা প্রচারে ব্যস্ত। ১নং ওয়ার্ডে প্রচার প্রচারণায় সুলতান আহমেদ অগ্রভাগে। ওয়ার্ডের সাধারণ জনগণ ও ভোটারা মনে করেন, সুলতান আহমেদ যোগ্য প্রার্থী। সমাজ সেবক সুলতান আহমেদ মানুষের কল্যাণে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।

তিনি গলগন্ডা ও ঢোলাদিয়া কমিউনিটি পুলিশিং এর সহ সভাপতি। অত্যন্ত জনপ্রিয়, প্রিয়মুখটিকে সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ১ নং ওয়ার্ড থেকে কাউন্সিলর নির্বাচিত করতে ওয়ার্ডবাসী ও সচেতন মহল আশাব্যক্ত করেছেন। স্থানীয় লোকজন এ প্রতিবেদককে বলেন, সুলতান আহমেদ এ শহরে সর্বমহলে পরিচিত একজন “কিন ইমেজ” ব্যক্তি। তিনি নির্বাচনে জয়ী হলে সেবক হিসাবে ওয়ার্ডবাসীর কল্যাণের জন্য অব্যাহত ভাবে কাজ করে যাবেন আমার দৃড়বিশ্বাস। তিনি আরো বলেন, এই সফল ব্যবসায়ী যদি জনপ্রতিনিধি হয়, তাহলে ব্যাপকভাবে গঠনমূলক সামাজিক উন্নয়ন বৃদ্ধি পাবে।

ময়মনসিংহ গলগন্ডা ও ঢোলাদিয়া কমিউনিটি পুলিশিং এর সহ সভাপতি সুলতান আহমেদ ১ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী হিসেবে জনগণের সেবক হবার ঘোষনা দিয়েছেন। তিনি ওয়ার্ডের সাধারণ মানুষ ও ভোটারদের কাছে যাচ্ছেন এবং আগামীতে আরো ব্যাপকভাবে গঠনমূলক জনপ্রতিনিধিত্ব কর্মকান্ডে সম্পৃক্ত হতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। তিসি সবার কাছে দোয়া, আর্শিবাদ ও সমর্থন চেয়েছেন। সবার সমর্থন নিয়ে নিজ ওয়ার্ডে নিঃস্বার্থভাবে জনপ্রতিনিধি হয়ে জনসেবায় তিনি আত্মনিয়োগ করতে চান।

তিনি ভোটের মাঠে নেমে ব্যাপক সাড়া পেয়েছেন ও নির্বাচনে জয়ী হলে তার এলাকায় যে কোন উন্নয়নে শতভাগ সততার সাথে দায়িত্ব পালন করবেন। সুলতান আহমেদ বীর মুক্তিযোদ্ধা মমতাজ আলীর ছেলে। সংসার জীবনে ৪ সন্তানের জনক। ৪ ছেলেই উচ্চ শিতি।

১ নং ওয়ার্ডের সাধারন ভোটাররা কাউন্সিলর হিসেবে সুলতান আহমেদকেই দেখতে চায় এবং তিনিও শতভাগ আশাবাদী। ওয়ার্ডের সফল পরীতি নেতা সুলতান আহমেদ গলগন্ডা, ঢোলাদিয়া ও খাগডহর এলাকা ওয়ার্ডের বিভিন্ন স্থানে ব্যাপক সাড়া জাঁগিয়েছে। ওয়ার্ডবাসী ও সাধারন ভোটারা মনে করেন এবার ভোটের মাঠে গণজোয়ারের রেকর্ড সৃষ্টি করবেন।

বাংলা সময় টুয়েন্টিফোর ডটকম

এ জাতীয় আরো সংবাদ


ফেসবুকে আমরা

ফেসবুকে আমরা