,

কুষ্টিয়ায় হত্যাকান্ড ও শিশু ধর্ষন পৃথক দুই মামলায় ১জনের মৃত্যুদন্ড ও আর ১জনের যাবজ্জীবন

কুষ্টিয়ার কালিশংকরপুরে শিশু ধর্ষন মামলায় জামাল উদ্দিন (৪২) নামের এক আসামীকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছে আদালত। আজ বুধবার বেলা সাড়ে ১টায় কুষ্টিয়া নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ আদালতের বিচারক মুন্সী মোঃ মশিয়ার রহমান এই রায় প্রদান করেন। রায় ঘোষনার সময় আসামী পলাতক ছিল। সাজাপ্রাপ্ত আসামী জামাল উদ্দিন মাগুড়া জেলার পারনান্দুমালী গ্রামের মৃত: আবুল হাশেমের ছেলে।

আদালত সূত্রে জানাযায়, ২০১০ সালের ৯অক্টোবর কুষ্টিয়া শহরের কালীশংকরপুর এলাকার ভারাটিয়া জামাল উদ্দিন প্রতিবেশী শিশুকণ্যাকে মা-বাবা অনুপস্থিতিতে চকলেট দেয়ার নাম করে ঘরে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করে। এঘটনায় শিশুটির মা বাদি হয়ে কুষ্টিয়া মডেল থানায় জামাল উদ্দিনকে আসামী করে একটি শিশু ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

মামলাটি তদন্ত শেষে ২০১০ সালের ০১ডিসেম্বর আসামী জামালের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের দ:বি: ৯(১)ক ধারায় অভিযোগ এনে আদালতে অভিযোগ পত্র দাখিল করেন পুলিশ। দীর্ঘ স্বাক্ষ্য শুনানী শেষে অভিযোগ প্রমানিত হওয়ায় জামিনে থেকে পলাতক আসামী জামাল উদ্দিনের অনুপস্থিতিতেই বিজ্ঞ আদালত তাকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড এবং এক লক্ষ টাকা জরিমানার আদেশ প্রদান করেন।

কুষ্টিয়া জজ কোর্টের সকরারী কৌশুলী এ্যাড. অনুপ কুমার নন্দী মামলারই রায়ের বিষটি নিশ্চিত করেছেন।

এ জাতীয় আরো সংবাদ


ফেসবুকে আমরা

ফেসবুকে আমরা