,

জমজমাট আয়োজনে আবারও হতে যাচ্ছে কুষ্টিয়া জিলা স্কুল ঈদ পূর্নমিলনী ও ক্রিকেট টুর্নামেন্ট

সারা বাংলা ডেস্ক : বাংলা সময় টোয়েন্টিফোর ডটকম;
কুষ্টিয়া থেকে আপন চৌধুরী সোহান:- শৈশব কৈশোর আর বয়ঃসন্ধিকালে ঘটে যাওয়া নানা ঘটনা প্রবাহের এক মহা মিলন-তীর্থ এই কুষ্টিয়া জিলা স্কুল। প্রাক্তন ছাত্রদের অংশগ্রহণে এবারও নতুনত্ব আঙ্গিকে ” পবিত্র ঈদ-ঊল- ফিতর” উৎযাপনের ঈদের ২য় ও ৩য় দিন জিলা স্কুলের সকল প্রাক্তন ছাত্রদের সমন্বয়ে ঈদ পুনর্মিলনী ও ক্রিকেট খেলার ২ দিন ব্যাপি উৎসব আসর আয়োজন হতে যাচ্ছে।

কুষ্টিয়া জিলা স্কুল ঈদ পূর্নমিলনী ও ক্রিকেট টুর্নামেন্টের
আয়োজক গোলাম মাহমুদ রুবেল বলেন, প্রাক্তন ছাত্রবন্ধুদের প্রাণস্পন্দনের মধ্যে বিদ্যালয় ও শিক্ষকের প্রতি ভালোবাসা এই ঈদ পুনর্মিলনীতে অংশ নিতে দেশের দূরদূরান্ত থেকে “পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর” ঈদের ২য় ও ৩য় দিনে সকল প্রাক্তন ছাত্রদের ” ঈদ পুনর্মিলন ” আনন্দঘন উল্লাসে দূরদুরান্ত থেকে ছুঁটে আসবে নাড়ির টানে তার নিজ শৈশবের বিদ্যালয়ে । আনন্দ ও ঊল্লাসে স্কুল চত্বরে সকল জিলাস্কুলিয়ান বন্ধুদের শৈশবের হাজারও স্মৃতি চিরোসবুজে ঘেরা অটুট বন্ধন লিপিবদ্ধ আবদ্ধ করতে আমাদের এই বন্ধুত্বের আয়োজন। এই বিদ্যালয়ের ছাত্ররা কংক্রিটের চেয়েও শক্তিশালী। চার ছক্কা হৈ হৈ খেলার মাঠে ছক্কা মারার আকর্ষনীয় পুরস্কার তো থাকছেই। ইনশাআল্লাহ্ আরো থাকছে এই আয়োজনে KZS সকল প্রক্তন ছাত্রদের ঊল্লাসে চান্চল্যকর দিকনির্দেশনা।

তিনি আরো বলেন,কুষ্টিয়া জিলা স্কুলের সকল সিনিয়র প্রাক্তন ছাত্রবৃন্দের প্রতি আহবান জানিয়ে যে যেখানে আছেন আর যেভাবে আছেন শুভেচ্ছা শুভকামনা জানিয়ে, সকলের উপস্থিত আমরা কামনা করছি।

উল্লেখ্য এমন ক্রিকেট খেলা জিলা স্কুল প্রতিষ্ঠিত ১৯৬১ সাল থেকে ২০১৮ সালেই জিলা স্কুলে প্রথম আয়োজন হয়েছিলো। সেদিন প্রথম প্রভাত সূর্যদয়ের সকাল ৮:৩০ মিনিট হতে আনন্দ শোভাযাত্রার মধ্য দিয়ে সকল প্রাক্তন ছাত্রদের ” ঈদ পুনর্মিলন ও ক্রিকেট টুর্নামেন্ট ” ২০০১ থেকে ২০১৬ ব্যাচ অবধি আয়োজন অনুষ্ঠান হয়। গত বছরের ১৬ টি ব্যাচের দলীয় অধিনায়কে যারা ছিলেন, তাদের ছবি সংযোজন করা হলো। এবারও ২০১৯ নতুন বছরে ২য় আসরে ও থাকছে ১৬ টি ব্যাচ। আরো সকলের উপস্থিতি থাকলে বাড়তে ও পারে,সিদ্ধান্তের উপর। ২০১৮ সালে আনন্দঘন এই ক্রিকেট আমেজ নিয়ে হাজার হাজার প্রাক্তন ছাত্র দূরদুরান্ত থেকে ছুঁটে আসে তাঁর শৈশবের স্কুলটিতে।

★ জিলা স্কুলের প্রাক্তন ছাত্রদের সমন্বয়ে এই ২ দিনের আলাপকালে মধ্যেই প্রথম দিনেই সকলের সম্মতিক্রমে বিদ্যালয়ে কমিটি করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ হয়েছে, শ্রদ্ধেয় ১৯৬১ সাল থেকে ২০১৮ সালের প্রতি ব্যাচের ও সকল প্রাক্তন ছাত্রদের উপস্থিতি সহযোগিতা কামনা করছি ।

★ ছাত্রদের অর্থে ও শিক্ষকদের সহযোগিতায় বিদ্যালয়ের নব নির্মিত মসজিদে আসছে “পবিত্র মাহে রমজানে” নারী ও পুরুষের ৫ওয়াক্ত নামাজ ও খতম তারাবীহ অনুষ্ঠিত -এর-ই মাঝে প্রাক্তন ছাত্রের জন্য, “পবিত্র ঈদ-ঊল-ফিতর” ঈদের খুশীর আমেজে মূলত
** ঈদ পুনর্মিলনী ও ক্রিকেট ** টুর্নামেন্টের আনন্দ বার্তা ” বয়ে আনবে।

এ জাতীয় আরো সংবাদ


ফেসবুকে আমরা

ফেসবুকে আমরা