,

ঝিনাইদহে জনতার হাতে ভূয়া ম্যাজিষ্ট্রেটসহ ভূয়া সাংবাদিক আটক !!

এম,এ জলিল,ঝিনাইদহ থেকে -ভূয়া ম্যাজিষ্ট্রেট ও সাংবাদিক সেজে ভ্রাম্যমান আদালত চালিয়ে ব্যাবসায়ীদের কাছ থেকে চাঁদা তোলার সময়ে জনতার হাতে ধরা পড়েছে তিন প্রতারক চক্র। এ সময় তাদের নিকট থেকে একটি প্রাইভেট কার, ৩ টি ভিজিডিং কার্ড, ষ্টিকার, ক্যামেরা ও উত্তোলিত চাদার টাকা জব্দ করা হয়েছে ।

আটককৃতরা হলো-মাগুরা জেলার আবালপুর (ইটখোলা বাজারপাড়া) গ্রামের মৃত নইমুদ্দিনের ছেলে উজ্জল মিয়া (৪৮), মাগুরা সদর থানার সাজিয়াড়া (মাঠপাড়া) গ্রামের মৃত ইসমাঈল শেখের ছেলে ইমরান হোসেন (৩২) এবং একই উপজেলার মালাঙ্গী (মাঝপাড়া) গ্রামের আরজ আলীর ছেলে মফিজুর রহমান (২৫) । পরে তাদেরকে থানা পুলিশে দেওয়া হয়। বুধবার দুপুরে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার চাপরাইল বাজারে এ ঘটনাটি ঘটেছে।

বাজারের ব্যাবসাযীরা জানান , বুধবার দুপুর ১ টার দিকে একটি প্রাইভেটকারে করে তিন জন ব্যাক্তি তাদের বাজারে আসে। এরপর তারা নিজেদেরকে ম্যাজিষ্ট্রেট ও সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে ভ্রাম্যমান আদালতের কথা বলে বাজারের ব্যাবসায়ীদের নিকট থেকে চাদা আদায় করতে থাকে। তারা ভয়ভীতি দেখিয়ে বাজারের গোবিন্দ হোটেল ও সুমন র্ফামেসি সহ অনেকগুলি মিষ্টি, মুদিখানা ও ঔষধের দোকান থেকে ৫’ শ থেকে ২ হাজার টাকা করে চাদা আদায় করছিল। এক পর্ষায়ে ওই প্রতারকদের কর্মকান্ড আচরনে সন্দেহ হলে ব্যাবসায়ীরা রুখে দাড়িয়ে তাদেরকে অবরোধ করে। এ সময় ব্যাবসাযীরা বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় চেয়ারম্যান ও পুলিশে খোজ নিয়ে জানতে পারেন ভ্রাম্যমান আদালতটি একটি ভুয়া প্রতারক চক্র। তখন ব্যাবসায়ীরা প্রতারকদের উত্তম মাধ্যম দিয়ে আটকে রাখে এবং প্রতারকদের নিকট থেকে একটি ডায়েরী , ক্যামেরা, মোবাইল ফোন, ও টিভির নামে ভিজিডিং কার্ড ও বুম, সরকারী দপ্তরের ষ্টিকার সহ তাদের ব্যাবহৃত ১টি প্রাইভেট কার জব্দ করেছে । পরে ব্যাবসায়ীরা থানা পুলিশে খবর দিলে কালীগঞ্জ থানার এস আই দেলোয়ার হোসেন ঘটনাস্থলে এসে প্রতারকদের আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

এ জাতীয় আরো সংবাদ


ফেসবুকে আমরা

ফেসবুকে আমরা