,

দামুড়হুদায় আম কুড়াতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার স্কুলছাত্রী, ধর্ষক আটক !!

শিমুল রেজা চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রতিনিধিঃ- চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় বাগানে আম কুড়াতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার হয়েছে চতুর্থ শ্রেণির এক ছাত্রী। এ ঘটনায় অভিযুক্ত একরামুল হক (২২) নামে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে
তার নিজ বাড়ি থেকে আটক করা হয়। আটক একরামুল হক উপজেলার গোবিন্দপুর গ্রামের পল্টু মিয়ার ছেলে।

পুলিশ জানায়, গত মঙ্গলবার সকালে চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রীটি দামুড়হুদার পুড়াপাড়া গ্রামের এক কৃষকের কন্যা ও একই গ্রামের প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রী।ঘটনার দিন তারা দুই বোন বাড়ির পার্শ্ববর্তী আমবাগানে আম কুড়াতে যায়। এ সময় একই গ্রামের ঘরজামাই একরামুল হক উভয়কে বাগানের পাশে হলুদ বাগানে নিয়ে চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ করে। তার বোন পালিয়ে গিয়ে বাড়িতে এসে সব খুলে বলে। এ সময় বাড়ির লোকজন ছুটে আসলে ধর্ষক পালিয়ে যায়। পরে গ্রামে এর মিমাংসার চেষ্টা করা হয়। কিন্তু শুক্রবার রাতে পরিবারের পক্ষ থেকে দামুড়হুদা মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করা হয়।

গতকাল শনিবার দুপুরে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে শিশুর ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন করে ২২ ধারায় বিজ্ঞ আদালতে জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়। এদিকে বেলা ১১টার দিকে মডেল থানার সেকেন্ড অফিসার শেখ রাজিব আল রশিদ গোপন সংবাদে ভিত্তিতে জানতে পারেন ধর্ষক একরামুল হক তার নিজ বাড়িতে অবস্থান করছেন। এমন সংবাদের ভিত্তিতে তিনি সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিযান চালিয়ে গবিন্দপুর গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে তাকে আটক করেন। দামুড়হুদা মডেল থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুকুমার বিশ্বাস ঘটনার সত্যতা
নিশ্চিত করেছেন।

এ জাতীয় আরো সংবাদ


ফেসবুকে আমরা

ফেসবুকে আমরা